1. 24sirajganj@gmail.com : Md Masud Reza : Md Masud Reza
  2. admin@dailysirajganjnews.com : unikbd :
শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ০২:৫১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
সিরাজগঞ্জে খামারিদের মাঝে গো-খাদ্য বিতরণ করলেন -এমপি   হাবিবে মিল্লাত মুন্না  সিরাজগঞ্জে নগর দরিদ্র সু-রক্ষা ফোরামের ত্রৈ-মাসিক সভা অনুষ্ঠিত বীরমুক্তিযোদ্ধা আব্দুল লতিফ মির্জা পরিচালিত পলাশডাঙ্গা যুবশিবির আয়োজিত ভদ্রঘাট যুদ্ধদিবস উপলক্ষ্যে মুক্তিযোদ্ধা জনতা মিলন মেলা অনুষ্ঠিত  সলঙ্গায় ফেসবুক ও ইউটিউবে অপ্রচার : থানায় অভিযোগ তাড়াশে বৃক্ষপ্রেমী অধ্যক্ষের ১ হাজার গাছের চারা বিতরণ করলেন এমপি ও সিনিয়র সচিব তাড়াশে আদিবাসী কৃতি শিক্ষার্থী‌দের সংবর্ধনা ও পুন‌র্মিলনী অনুষ্ঠিত সিরাজগঞ্জের শিয়ালকোলে বিদেশ পাঠানোর নামে প্রতারণা, টাকা ফেরত চাওয়ায় উল্টো ভয়ভীতি দেখানোর অভিযোগ রায়গঞ্জের পাঙ্গাসীতে কোরবানির গোস্ত বিতরণ নিয়ে সংঘর্ষ : বাড়িঘর ভাংচুর ও মারপিট,আহত ২ শাহজাদপুরে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দু- গ্রুপের সংঘর্ষে নিহত ১, আহত ৮ তাড়াশে স্থানীয় উন্নয়ন বরাদ্দে আদিবাসীদের অংশীদারিত্ব বিষয়ক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত তাড়াশে সমাজের মাংশ ভাগাভাগি নিয়ে সংঘর্ষে দু-পক্ষের ১০জন আহত বেলকুচিতে ঈদগাহ থেকে বাড়ী ফেরা হলো না নাজিয়ার,সড়কেই গেল প্রাণ

শাহজাদপুরে অসহায় হিন্দু মেয়ের রাজকীয় বিয়ে দিলেন- সমাজকর্মী মামুন বিশ্বাস

  • Update Time : সোমবার, ২০ মার্চ, ২০২৩
  • ৮১ Time View

শাহজাদপুর প্রতিনিধি:
সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার কামার বেতকান্দি গ্রামের পরেশ চন্দ্র রাজবংশী ও দুলু রানীর মেয়ে সুপ্তি রানীর বিয়ে ঠিক হয় একই উপজেলার সঞ্জয় কুমার ঘোষের সঙ্গে। কিন্ত অসুস্থ অসহায় বাবা পরেশ চন্দ্র রাজবংশী মেয়ের বিয়ে দেওয়ার মতো কোনো অবস্থায় নেই। কীভাবে মেয়ের বিয়ে দেবেন সেই চিন্তা দিন দিন বাড়তে থাকে বাবা পরেশ চন্দ্র ও মা দুলু রানীর।

পরেশ চন্দ্র পেশায় মৎসজীবী। দুই বছর আগে হার্টে রিং পড়ানোর পর থেকে তিনি আর কোনো কাজ করতে পারেন না। এরপর থেকে সংসারের হাল ধরেন ১৪ বছর বয়সী ছেলে গোপাল চন্দ্র রাজবংশী। তিন মেয়ে আর দুই ছেলে নিয়ে পরেশ-দুলু দম্পতির সংসার।

এদিকে বিয়ের দিন চলে আসে। কোনো কিছু বুঝতে না পেরে দ্যা বার্ড সেফটি হাউজের চেয়ারম্যান মানবতার ফেরিওয়ালা খ্যাত মামুন বিশ্বাসের কাছে চলে আসেন সুপ্তির বাবা। তাদের অসহায় অবস্থার কথা জানিয়ে মেয়ের বিয়ের পাশে দাঁড়ানোর জন্য অনুরোধ করেন। এ সময় তাকে আশ্বস্ত করেন মামুন বিশ্বাস।

এরপর সুপ্তির বিয়ের জন্য সাহায্য চেয়ে তার ফেসবুকে পোস্ট দেন মামুন বিশ্বাস। খুব দ্রুত দেশ বিদেশ থেকে তার ফেসবুক বন্ধুরা টাকা পাঠান। সুপ্তির বিয়ের জন্য সব মিলিয়ে প্রায় ২ লাখ টাকা সংগ্রহ হয়।

মামুন বিশ্বাস  বলেন, টাকা সংগ্রহ হবার পরে এবার সেচ্ছাসেবক নিয়ে শুরু করি বিয়ের বাজারের কেনাকাটা। বিয়ের পুরো খাদ্যসামগ্রী দেন এক দানশীল ব্যক্তি। এছাড়াও দুইটা খাসি, মুরগির রোস্ট, দই, পানি, সফট ডিংক্স, চাল, পোলাওয়ের চাল, ডাল, ডিমসহ সবকিছু কেনা হয় সুপ্তির বিয়ের জন্য।

এরপর মেয়েসহ সবাইকে নিয়ে মার্কেটে গিয়ে বিয়ের শাড়ি, হলুদের কাপড়, জুতা কসমেটিস কেনাকাটা শেষ করি। বরের জন্য কেনা হয় ধুতি, পাঞ্জাবি ও জুতা। বিছানার চাদর, লেপ-তোষক ও বালিশ কেনাকাটা করা হয়। এবার গয়নার দোকানে গিয়ে এক ভরি স্বর্ণের গহনা বানানো হয়। নিজ হাতে টাকা তুলে দেই গহনার কারিগরকে। সব কিছু নিয়ে বিয়ে বাড়িতে চলে আসি।

হিন্দু নিয়ম অনুযায়ী বাড়িতে শুরু হয় ডেকোরেশনের কাজ। বিয়ের গেট, বর মঞ্চ ছাড়াও বিয়ের মন্ডব ও বরযাত্রীদের জন্য প্যান্ডেল তেরি করা হয়। এছাড়াও বিভিন্ন রঙিন সাজে লাইটিং করা হয়।

রাত ১টায় বিয়ের লগ্ন। পুরোহিত মন্ত্র উচ্চারণ করে শুরু করেন বিয়ে। কনে আর বর ৭ পাক ঘুরে সম্পন্ন করতে থাকেন বিয়ে। এরপর বর-কনে দুজনের শুভদৃষ্টি ও মালা বদল করা হয় ৭ বার। পুরোহিত মন্ত্র উচ্চারণ করে বর-কনের হাত করে দেন একত্র।

পরের দিন আবার শুরু হয় বাসি বিয়ের পর্ব। বাসি বিয়েতে বিভিন্ন দেবদেবীর অর্চনা শেষে বর-কনের কপালে সিঁদুর দিয়ে দেয়। তারপর উভয় মিলে ৭ বার অগ্নি দেবতা প্রদক্ষিণ করেন।

বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা শেষে বিদায় বেলায় সুপ্তি রানী ও সঞ্জয় কুমার ঘোষ দম্পতিকে ‘আশীর্বাদ’ করেন মামুন বিশ্বাসসহ সবাই। এরমধ্যে দিয়ে শেষ হয় অসহায় সুপ্তির রাজকীয় বিয়ে।

অনুভূতি প্রকাশ করতে গিয়ে মামুন বিশ্বাস বলেন, সুপ্তির বিয়েতে আবেগপ্রবণ ছিলাম আমি। বোনের বিয়েতে ভাই যেমন হয়। আমার কাছে মনুষ্যত্বই পরম ধর্ম। আমি ইসলাম ধর্মের অনুসারী। অতএব স্রষ্টার পরেই মানুষের গুরুত্ব আমার কাছে। এভাবেই সহস্র বছর বেঁচে থাকুক অসাম্প্রদায়িকতা।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
  • © All rights reserved © 2023 Daily Sirajganj News
Website Developed by UNIK BD
x