1. 24sirajganj@gmail.com : Md Masud Reza : Md Masud Reza
  2. admin@dailysirajganjnews.com : unikbd :
বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০২:২৫ অপরাহ্ন
শিরোনাম
সিরাজগঞ্জে খামারিদের মাঝে গো-খাদ্য বিতরণ করলেন -এমপি   হাবিবে মিল্লাত মুন্না  সিরাজগঞ্জে নগর দরিদ্র সু-রক্ষা ফোরামের ত্রৈ-মাসিক সভা অনুষ্ঠিত এস.বি রেলওয়ে কলোনী হাই স্কুল এন্ড কলেজের উদ্যোগে শহীদদের প্রতি ফুলেল বিনম্র শ্রদ্ধা আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ মেমোরিয়াল হাই স্কুল এন্ড কলেজের উদ্যোগে শহীদদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা একুশ মাথা নত না করতে শেখায়: প্রধানমন্ত্রী ভাষা শহীদদের প্রতি রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা নিবেদন কাজিপুরে স্বর্ণ কিশোরীদের সুরক্ষায় সচেতনতামূলক অনুষ্ঠানে স্যানিটারি সামগ্রী বিতরণ সিরাজগঞ্জ জেলা পর্যায়ে জাতীয় শিশু -কিশোর ইসলামিক সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা ২০২৪ অনুষ্ঠিত একুশে পদক-২০২৪ বিতরণ প্রধানমন্ত্রীর মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস কাল প্রধানমন্ত্রী একুশে পদক-২০২৪ বিতরণ করবেন কাল শাহজাদপুরে সূর্যমুখী চাষে চাষিদের বিপ্লব ঘটানোর সম্ভাবনা

উত্তরের জনপদে জেঁকে বসেছে তীব্র শীত

  • Update Time : রবিবার, ১৪ জানুয়ারী, ২০২৪
  • ৪৮ Time View

 

উত্তরের খবর: বাংলা ঋতূর হিসেবে এখন শীতকাল চলছে। আজ পৌষের ৩০ তারিখ। হিমালয়ের কোল ঘেঁষে থাকা দেশের উত্তরের জনপদে শীতকালের মধ্যভাগে এখন জেঁকে বসেছে তীব্র শীত। এর প্রভাব পড়েছে জনজীবন ও জনস্বাস্থ্যের ওপর।বাসসের জেলা সংবাদদাতারা আজ রোববার জানান-দিনাজপুর: জেলা আবহাওয়া অফিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আসাদুজ্জামান আজ বিকেল ৪টায় জানান- সর্বনি¤œ তাপমাত্রা দেশের মধ্যে এই জেলায় ৮ দশমিক ৪ সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে। 

এ সময় বাতাসের আদ্রতা ছিল ৯৭ শতাংশ। এ অঞ্চলে শৈত্যপ্রবাহ গত সাতদিন ধরে অব্যাহত বয়ে যাওয়ায় ও কনকনে হাড়কাপাঁনো শীতে জনজীবন অস্থিরতা বিরাজ করছে। এই অবস্থা আরও তিন থেকে পাঁচদিন চলমান থাকার আশংকা করা হচ্ছে। দিনাজপুর পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক ফজলে রাব্বি জানান, গত ১ সপ্তাহে দিনাজপুর জেলার ১৭টি রুটে প্রায় ছোট-বড় ৫৫টি যানবাহন দুর্ঘটনায় কবলিত হয়েছে। রাতে ও দিনে হেডলাইট জ্বালিয়ে রাস্তায় যাত্রীবাহি বাস ও মালবোঝাই ট্রাকগুলো যানবাহন চালাচ্ছে। জেলা প্রশাসক শাকিল আহম্মেদ জানান, এ পর্যন্ত জেলার ১৩টি উপজেলায় প্রায় ৬৫ হাজার পিস সরকারিভাবে প্রাপ্ত শীতবস্ত্র কম্বল জনপ্রতিনিধিদের মাধ্যমে বিতরণ করা হয়েছে। 

এছাড়া জেলা প্রশাসকের পক্ষ থেকে প্রতিদিন রাত ও দিনে শহরের বিভিন্ন স্থানে শীতার্ত জনসাধারণের মাঝে প্রায় ১০ হাজার পিস কম্বল বিতরণ করা হয়েছে। তিনি জানান, আজ রোববার দুপুর ২টায় জেলা প্রশাসকের পক্ষ থেকে ৬০ হাজার পিস কম্বল এবং নগদ ৫০ লাখ টাকার চাহিদায় ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়ে ই-মেল বার্তা প্রেরণ করা হয়েছে।কুড়িগ্রাম: জেলার রাজারহাট কৃষি আবহাওয়া পর্যবেক্ষণাগারের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সুবল চন্দ্র জানান, আজ ভোর ৬টায় সর্বনি¤œ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ১২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। জেলায় টানা ছয়দিন দেখা মেলেনি সূর্যের। হিমেল হাওয়া, মেঘলা আকাশ ও ঘন কূয়াশার কারণে ঠান্ডায় স্থবির হয়ে পড়েছে জনপদ। বিশেষ করে চরাঞ্চল ও নদী তীরবর্তী এলাকায় হিমেল বাতাসের কারণে কাবু হয়ে পড়েছে শিশু, নারী ও বয়স্করা। কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. আতিকুল ইসলাম জানান, শীত বেড়ে যাওয়ায় হাসপাতালে রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। বিশেষ করে ডায়রিয়া ও নিউমোনিয়া রোগীর সংখ্যা আগের চেয়ে বেড়েছে। প্রতিদিন গড়ে ৩০ জন ডায়রিয়া ও নিউমোনিয়া রোগী ভর্তি হচ্ছে। বর্তমানে ডায়রিয়া ওয়ার্ডে ৬২ জন ও শিশু ওয়ার্ডে ১৪ জন নিউমোনিয়া রোগী চিকিৎসাধীন রয়েছে।  চুয়াডাঙ্গা: চুয়াডাঙ্গা আবহাওয়া অফিসের পর্যবেক্ষক রকিবুল হাসান জানায়, আজ সকাল ৯টায় জেলায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৯ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং বাতাসের আদ্রতা ৯৪ ভাগ। জেলায় বয়ে যাচ্ছে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ সেই সাথে বেড়েছে শীতের তীব্রতা। সন্ধ্যার পর থেকে কুয়াশামাত্রা বাড়তে থাকায় দূরের কোনকিছু দেখা যাচ্ছে না। হাড়কাঁপানো কনকনে ঠান্ডা কাবু হয়ে পড়েছে সাধারণ মানুষ। রাত পেরিয়ে সকাল আসার সঙ্গে সঙ্গে শীতের তীব্রতা যেন আরও বেড়ে যাচ্ছে। দিনের বেলায় যানবাহনগুলো হেডলাইট জ্বালিয়ে চলাচল করছে।ঠাকুরগাঁও: জেলায় তাপমাত্রা নিরূপণের কোনো কার্যালয় নেই। তবে কৃষি সম্প্রসাারণ অধিদপ্তর প্রতিদিন তাপমাত্রা পরিমাপ করে। কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর জানিয়েছে, গত ৬-৭ ধরে প্রথমে মৃদু ও পরে তীব্র শৈত্যপ্রবাহ চলছে জেলায়। আজ সকাল ৯ টায় জেলায় সর্বনিম্ন ৯ দশমিক  ১ আবার কোথাও ৮ দশমিক ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে। এ সময় বাতাসের আদ্রতা ছিল ৯৪-৯৬ শতাংশ। ফলে গত দুইদিনে ২-৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস কমে গেছে। তীব্র শৈত্যপ্রবাহ ও ঠান্ডা বেড়ে গিয়ে বিপর্যস্ত জেলার জনজীবন। কর্মজীবী শ্রমিকরা ঠান্ডায় কাজ করতে না পেরে পরিবার পরিজন নিয়ে কষ্টে দিনাতিপাত করছে। কুয়াশার কারনে দিনের বেলাতেই হেডলাইড জ¦ালিয়েই গাড়ি চালাতে হচ্ছে। অনেক মানুষ শীতজনিত রোগে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন। এদের মধ্যে শিশু ও বৃদ্ধের সংখ্যাই বেশি।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
  • © All rights reserved © 2023 Daily Sirajganj News
Website Developed by UNIK BD